শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৭:৩১ পূর্বাহ্ন

কলারোয়াতে ঘুষ না দেওয়ায় প্রতিবন্ধীর ‘ভাতা কার্ড’ আটকে রাখলেন ইউপি সদস্য।

তরিকুল ইসলাম / ৪৮৩ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১৪ আগস্ট, ২০২০, ৪:৪৬ অপরাহ্ন

সাতক্ষীরার কলারোয়াতে ঘুষ হিসাবে দাবি করা ৪ হাজার টাকা দিতে না পারায় প্রতিবন্ধীর ভাতা কার্ড আটকে রাখার অভিযোগ উঠেছে এক ইউপি মেম্বরের বিরূদ্ধে ।

ঘটনাটি কলারোয়া উপজেলার ২ নং জয়নগর ইউনিয়নের ইউপি সদস্য রেজাউল ইসলাম’র বিরূদ্ধে ।

জয়নগর ইউনিয়নের  ক্ষেত্রপাড়া  গ্রামের মৃত মোবারক গাজীর প্রতিবন্ধীপুত্র আকছেদ আলীর (৬০) ওরফে আকছেদ পাগল এর স্ত্রী রওশনারা বেগম এই প্রতিবেদককে জানান, তার স্বামী আকছেদ আলী জন্ম থেকে পাগল হওয়ায় (প্রতিবন্ধী) বিভিন্ন এলাকায় ভিক্ষাবৃত্তি করে ৪/৫ সদস্যর সংসার চালায় ।করোনার কারনে গ্রাম ঘুরলেও বেশির ভাগ লোকজনই ভিক্ষা না দেওয়ায় এখন সংসার চলছে না। এ অবস্থায় ২ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য রোজাউল বিশ্বাস ওরফে ধোপা রেজাউলের কাছে প্রতিবন্ধী ভাতার কার্ড করে দেয়ার জন্য আবেদন করি। এক পর্যায়ে তিনি একটি কার্ড করে দেন। গত সম্পাহে আমার স্বামীর কার্ড হয়েছে জানিয়ে রেজাউল মেম্বর আমার কাছে ঘুষ বাবদ ৪ হাজার টাকা দাবি করে। আমি অত টাকা যোগাড় করে না দেওয়ায় প্রতিবন্ধী কার্ডটি আটকিয়ে রেখেছে।

এলাকাবাসি জানায়, রেজাউল মেম্বর এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী। তার ভয়ে এলাকার মানুষ মুখ খুলতে সাহস পায় না। তার বিরুদ্ধে থানা ও আদালতে সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের একাধিক মামলা রয়েছে।

অভিযুক্ত ইউপি সদস্য রেজাউল ইসলাম বলেন,  আকছেদ প্রতিবন্ধী কিনা সেটি পরীক্ষা করার জন্য আমার কিছু টাকা খরচ হয়েছিল। আকছেদের বউয়ের কাছে ওই টাকা দাবি করেছিলাম। তারা এখনো সে টাকা দেয়নি।

ইউপি চেয়ারম্যান ছামছুদ্দিন আল মাসুদ বাবু ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেছেন, রেজাউল মেম্বর ঘুষ ছাড়া কোন কাজই করে না। এর আগেও তার বিরূদ্ধে অভিযোগ এসেছিল ।

কলারোয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও)মৌসুমি জেরিন কান্তা বলেন, তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

[পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের]


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

Archives

এক ক্লিকে বিভাগের খবর
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect. Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.